কেন KL Rahul এর Test team থেকে বাদ পড়া উচিত?

KL Rahul

 

সম্প্রতি KL Rahul এর ব্যাটিং ফর্ম নিয়ে চর্চা সর্বস্তরে। ইদানিং একদমই রান পাচ্ছেন না রাহুল। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে দিল্লি টেস্টে তার আউট হওয়ার ধরণ দেখে বোঝা গেছে, ভাগ্য তাকে সামান্যতম সঙ্গ দিচ্ছেনা। তার মাঝেই বিসিসিআই তাকে ছেঁটে ফেলেছে টেস্ট দলের সহ অধিনায়কের পদ থেকেও। সব মিলিয়ে বর্তমানে সময়টা একদমই ভালো যাচ্ছে না ভারতের টেস্ট দলের এই ওপেনারের। তার ওপর প্রাক্তন ক্রিকেটারদের মধ্যেও রাহুলকে নিয়ে শুরু হয়েছে কাদা ছোড়াছুড়ি।

KL Rahul এর সম্প্রতি ফর্ম

বিগত এক বছর ধরে রাহুলের টেস্ট ক্রিকেটের ফর্ম মোটেও ভালো নয়। ২০২২ সালের দক্ষিণ আফ্রিকার সফর থেকে এখনো পর্যন্ত সাতটি টেস্টে ভারতের হয়ে ওপেন করতে নেমেছে রাহুল। এই সাতটি টেস্টে তার সর্বমোট রান হল ১৭৫। শেষবারের মতো অর্ধশতরান করেছিলেন জোহানেসবার্গ টেস্টে। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম দুটো টেস্টে রাহুল সবমিলিয়ে রান করেছে ৩৮। স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠে গেছে তার টেস্ট দলের প্রথম একাদশে থাকা নিয়ে।

KL Rahul এর টেস্ট পারফরম্যান্স

রাহুলের টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক হয়েছিল ২০১৪ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে। সেই টেস্টে ওপেনার রাহুল দলের প্রয়োজনে ব্যাট করতে নেমেছিলেন ছয় নম্বরে। কিন্তু অভিষেক টেস্টে মনে রাখার মত কিছুই করতে পারেননি রাহুল। প্রথম ইনিংসে মাত্র তিন রান করে আউট হয়েছিলেন নাথান লায়নের বলে। কিন্তু আউট হওয়ার ধরন দেখে মোটেও খুশি হননি বিশেষজ্ঞরা। দ্বিতীয় ইনিংসে তিন নম্বরে ব্যাট করতে নেমে মাত্র এক রানে ফিরতে হয়েছিল রাহুলকে। কিন্তু সেই টেস্ট সিরিজের পরের টেস্টে সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে মুরলি বিজয়ের সঙ্গে প্রথমবার ভারতের হয়ে টেস্টে ওপেন করতে নামে রাহুল। জীবনের দ্বিতীয় টেস্ট ম্যাচে নিজের ব্যাটিং দক্ষতার পরিচয় দেন কর্নাটকের এই ডানহাতি ওপেনার। মুরলী বিজয় শূন্য রানে আউট হলেও রাহুল তার ইনিংস শেষ করেন ১১০ রান করে। প্রথম টেস্টে তার ব্যাটিং দেখে বিশেষজ্ঞরা যতটাই বিরূপ হয়েছিলেন দ্বিতীয় টেস্টে ততটাই বাহবা দিয়েছিলেন তারা।

এখনো পর্যন্ত দেশের হয়ে ৪৭ টি টেস্ট ম্যাচ খেলেছে রাহুল। মোট ৮১ টি ইনিংসে এই ডান হাতির রান সংখ্যা ২৬৪২। রাহুলের ব্যাটিংগড় বর্তমানে ৩৩. ৪৪। প্রশ্ন উঠছে এখানেই। এত কম ব্যাটিং গড় নিয়ে কি করে দিনের পর দিন খেলে চলেছে রাহুল। কোন ভরসায় সব সময় অন্যদের বঞ্চিত করে তাকে প্রথম একাদশে রাখি টিম ম্যানেজমেন্ট? এই শতাব্দীতে ভারতের হয়ে যারা টেস্ট দলে ওপেন করতে নেমেছে তাদের মধ্যে সবচেয়ে খারাপ ব্যাটিংগড় KL RAHUL এর। হাজারো কথা হওয়ার পরও একটার পর একটা টেস্ট ম্যাচ খেলে চলেছে রাহুল।

 

এক নজরে দেখে নেওয়া যাক সম্প্রতি যারা ভারতের হয়ে টেস্ট খেলেছে তাদের ব্যাটিংগড় কত:-

নাম ব্যাটিংগড়
বীরেন্দ্র সহবাগ 49.34
ওয়াসিম জাফর 34.10
গৌতম গম্ভীর 39.68
মুরলী বিজয় 38.29
শিখর ধাওয়ান 40.61
রোহিত শর্মা 46.76
মায়াঙ্ক আগরওয়াল 41.33
শুভমান গিল 32.0
পৃথ্বীশ শাহ 42.37

 

KL Rahul এর পরিবর্তে কারা দলে আসতে পারে?

এই মুহূর্তে ভারতীয় দলের যা অবস্থা তাতে রোহিত শর্মা জায়গা ওপেনার হিসেবে সবার উপরেই থাকবে। তিনি টেস্ট দলের ক্যাপ্টেন। তাছাড়া সম্প্রতি রোহিত যে ফর্মে রয়েছে তাতে তার দলে থাকা নিয়ে কোন প্রশ্নই উঠতে পারেনা। চলতি অস্ট্রেলিয়া সিরিজে নাগপুরে প্রথম টেস্টে কঠিন পরিস্থিতিতে তার শত রান বহুদিন মনে রাখবে ভারতীয় ক্রিকেট দলের সমর্থকরা। শুধুমাত্র শত রান করাই নয় যে ছন্দে রোহিত ব্যাট করছে তা দেখে মনে হচ্ছে তিনি তার ব্যাটিং ফার্মের শীর্ষে রয়েছেন। ফলে দলের দুজন ওপেনারের একজনের জায়গা পাকা। লড়াই আরেকজন ওপেনার কে হবেন তা নিয়ে। দেখা যাক কারা আসতে পারে রাহুলের পরিবর্তে।

  1. শুভমানগিল: ওপরের তালিকার দিকে নজর রাখলে এই মুহূর্তে রাহুলের চেয়ে একমাত্র পিছিয়ে রয়েছেন শুভমান গিল। কিন্তু সম্প্রতি গিল স্বপ্নের ফর্মে রয়েছেন। তিনি মাঠে ব্যাট হাতে নামলেই স্বপ্ন দেখতে শুরু করছেন ভারতীয় দলের সমর্থকরা। তার প্রধান কারণ হলো সম্প্রতি তার খেলা বেশ কয়েকটি ইনিংস। চলতি টেস্ট সিরিজের আগে ভারতের শেষ টেস্ট সিরিজ ছিল বাংলাদেশের বিরুদ্ধে বাংলাদেশে। সেখানে কঠিন পিচে বাংলাদেশের পিন বোলিং এর সামনে জীবনের প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরি করেন শুভমান। এরপর দেশে ফিরে এসে শ্রীলঙ্কা এবং নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি এবং ওডিআই সিরিজে রানের ফুলজুরি ঝরানো পাঞ্জাবের এই স্টাইলিস্ট ডানহাতি ওপেনার। একদিনের ক্রিকেটে সবচেয়ে কম বয়সী হিসেবে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ডাবল সেঞ্চুরি ও হাকান গিল।স্বাভাবিকভাবেই তাকে বসিয়ে রেখে ফর্মে না থাকা রাহুলকে খেলানো নিয়ে বারবার প্রশ্ন তুলছেন প্রাক্তন ক্রিকেটার থেকে সমর্থক সকলেই।
  2. মায়াঙ্ক আগরওয়াল: রাহুলের কর্ণাটক দলের অভিন্ন হৃদয়ের বন্ধু মায়াঙ্ক আগরওয়ালের আসবে অবশ্যই এরপর। ডানহাতি আক্রমণাত্মক এই ওপেনার ভারতের হয়ে শেষবার টেস্ট খেলেছিলেন এক বছর আগে চেন্নাই শ্রীলংকার বিরুদ্ধে। সেই টেস্টে মোটেই ভালো পারফর্ম করতে পারেননি মায়াঙ্ক আগরওয়াল। এখনো পর্যন্ত ২১টা টেস্টে ৩৬ টা ইনিংসে ১৪৮৮ রান করেছেন তিনি। ব্যাটিংগড় ৪১.৩৩।তবে বর্তমানে ঘরোয়া ক্রিকেটে অসাধারণ ফর্মে রয়েছেন মায়াঙ্ক। স্বাভাবিকভাবেই তিনি আবার টেস্ট দলের ওপেনার পজিশনের খেলার চর্চায় চলে এসেছেন।
  3. পৃথ্বীশশাহ: পৃথ্বীর শাহর প্রতিভা নিয়ে প্রশ্ন ওঠার কোন জায়গা নেই। মনে করা হয় সম্প্রতি কালে তিনি সবচেয়ে প্রতিভাবান ব্যাটার। ২০১৮ সালের অক্টোবর মাসে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে টেস্টে অভিষেক হয়েছিল তার। অভিষেক টেস্টের প্রথম ইনিংসেই ১৫৪ বলে ১৩৪ রানের ইনিংস খেলে সকলকে তাক লাগিয়ে দিয়েছিলেন মুম্বাইয়ের এই ডানহাতি ওপেনার। কিন্তু এরপর বিভিন্ন কারণে দল থেকে ছিটকে যান পৃথ্বীশ শাহ।কিন্তু সম্প্রতি রঞ্জি ট্রফিতে ৩০০ করে আবার নির্বাচকদের নজর কেড়েছেন তিনি।সম্প্রতি নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে শেষ হওয়া একদিনের সিরিজে দলে জায়গা পেল প্রথম একাদশে ঢোকার সুযোগ হয়নি তার। কিন্তু তারপরও চর্চায় এসে গেছেন অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপ জয়ী দলের প্রাক্ত নেই অধিনায়ক।

যদি দলে ঢোকার মাপকাঠি সম্প্রতি পারফরম্যান্স হয়ে থাকে তাহলে সবকিছু বিচার করলে KL Rahulকোনভাবেই এই মুহূর্তে টেস্ট একাদশের জায়গা পান না। কিন্তু তারপরও কোন অজ্ঞাত কারণে যখন কোহেলি অধিনায়ক ছিলেন সেই সময়ও এবং বর্তমানে রোহিতের অধিনায়ক করতেও একাদশে কোন অজ্ঞাত কারণে সুযোগ পেয়ে আসছেন রাহুল। অথচ দিনের পর দিন ভালো খেলেও সুযোগ পাচ্ছেন না অনেক প্রতিভাবান ব্যাটার।

 

1 thought on “কেন KL Rahul এর Test team থেকে বাদ পড়া উচিত?”

Leave a Comment